নোটিশ :
জরূরী নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি: সারাদেশ ব্যাপী সাংবাদিক নিয়োগ চলছে আগ্রহীরা যোগাযোগ করুন: 01753741909, সিভি পাঠান:  crimejanata24@gmail.com
ব্রেকিং নিউজ :
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রীকে দায়িত্ব গ্রহণের জন্য অভিনন্দন জানিয়েছেন। হিজলায় মামলা তুলে নিতে প্রতিবন্ধী পরিবারকে হত্যার হুমকি  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ভোট চুরি করে কেউ ক্ষমতায় থাকতে পারে না, প্রিয়জনদের সঙ্গে ঈদের আনন্দ উপভোগ করতে নানা দুর্ভোগ মাড়িয়ে বাড়ির পথে মানুষের ঢল। হিজলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের গেট ও দেয়াল ভেঙে ফেলার অভিযোগ । হিজলায় নব- নির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যানদের সংবর্ধনা  হিজলায় অসহায় পরিবারকে বাড়ি থেকে উচ্ছেদ করতে  হামলা ও ভাংচুর  হিজলায় স্বাভাবিক প্রসব সেবা জোরদারকরণ বিষয়ক অভিহিতকরণ কর্মশালা  শান্তিপূর্ণভাবে শেষ হয়েছে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের চতুর্থ ধাপের ভোটগ্রহণ। বিক্ষোভ সমাবেশে এসব কথা বলেন সমাবেশে নাগরিক ঐক্যের সভাপতি মাহমুদুর রহমান মান্না।
ইউএনও’র হস্তক্ষেপে দুই সন্তান পেলো বাবার স্বীকৃতি

ইউএনও’র হস্তক্ষেপে দুই সন্তান পেলো বাবার স্বীকৃতি

হাতিয়া (নোয়াখালী) প্রতিনিধি  মোঃ ছাইফুল ইসলাম জিহাদঃ  মাথা নিচু করে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ে দাড়িয়ে আছে ত্রিশোর্ধ এক যুবক। পাশে ৩ বছরের এক কন্যা শিশু ও নবজাতক সন্তান কোলে নিয়ে দাড়িয়ে আছে ২১ বছর বয়সের এক নারী। চোখে মুখে হতাশার ছাপ। ভিতরে গিয়ে দেখা যায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার সামনে বসে কাজি সাহেব এই সন্তান দুটির পিতা-মাতার বিয়ে রেজিষ্ট্রির জন্য বয়স যাচাই বাচাই করছেন। সবশেষে স্বামী-স্ত্রী দুই জনের বয়স নিয়মের মধ্যে পড়ায় তাদের বিয়ে রেজিষ্ট্রি করানো হয়। মহূর্তে বিমর্ষ থাকা নারীর মূখে দেখা দিল পরম প্রাপ্তির হাসি।
এতে করে দীর্ঘদিন পর পিতার স্বীকৃতি পেল দুই সন্তান। আর স্ত্রীর মর্যাদা পেল রাহেনা আক্তার (২১) নামে এক নারী। সোমবার বিকালে ঘটনাটি ঘটে নোয়াখালী দ্বীপ উপজেলা হাতিয়ায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. ইমরান হোসেনের কার্যালয়ে।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, তাদের বিয়ে হয় ৫ বছর পূর্বে। ইতিমধ্যে দম্পতি দুটি সন্তানও জন্ম দেয়। সুন্দর ভাবে চলছিল তাদের সংসার। হঠাৎ পারিবারিক কলহের জের ধরে মা বাবা দুইজন পৃথক থাকতে শুরু করে। কিন্তু বিয়ের সময় তোলা কোন ছবি ও বিয়ের রেজিষ্ট্রি না থাকায় পিতা তার সন্তান ও স্ত্রীকে অস্বীকার করতে শুরু করে। দীর্ঘ এক বছর ধরে সন্তানদের পিতার পরিচয় ও স্ত্রীর স্বীকৃতি ফিরে পেতে অনেকের কাছে গিয়েছে রাহেনা আক্তার নামে ২১ বছর বয়সের এই নারী। এমনকি দুটি মামলাও করেছে কিন্তু বিয়ের রেজিষ্ট্রি না থাকায় মামলায় বেশিদূর এগুতে পারেনি।
এ বিষয়ে রাহেনা বাদী হয়ে সন্তানদের স্বীকৃতি ও স্ত্রীর মর্যাদা পেতে ৩ জানুয়ারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নিকট একটি আবেদন করে। আবেদন পেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হাতিয়া থানার সহযোগিতায় স্বামী আরিফকে তার কার্যালয়ে হাজির হতে নির্দেশ দেয়।
এদিকে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার আদেশ মোতাবেক উভয় পক্ষ ৪ জানুয়ারি বিকালে তার কার্যালয়ে হাজির হলে এ বিষয়ে দীর্ঘ শুনানির পর রাহেনার স্বামী আরিফের সম্মতিতে তাদের বিয়ে রেজিষ্ট্রি করানো হয়।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন- উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. ইমরান হোসেন, তাদের দুই সন্তান, রাহেনার মা জরিনা বেগম (৫৫), কাজি আব্দুর রহিম, উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা অনিল চন্দ্র দাস, বুড়িরচর ইউনিয়ন পরিষদের সচিব ইয়াসিন আরাফাত, হাতিয়া প্রেসক্লাবের সাধারন সম্পাদক ফিরোজ উদ্দিন ও রাহেনার স্বামী মো. আরিফ। পরে উপস্থিত সবাইকে মিষ্টিমুখ করায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা।
রাহেনা আক্তার হাতিয়ার বুড়িরচর ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের কালিরচর গ্রামের মৃত আবদুর রাজ্জাকের মেয়ে। তার স্বামী মো. আরিফ (৩০) একই এলাকার মৃত নোয়াব আলী সরদারের ছেলে।
এ ব্যাপারে রাহেনা জানান, মামলা করেও স্ত্রীর মর্যাদা পাইনি, আমার সন্তানেরা পাইনি পিতার পরিচয়। আজ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ইমরান হোসেন স্যারের হস্তক্ষেপে আমার সন্তানেরা তাদের পিতৃ পরিচয় ফিরে পেল। আমি পেলাম স্ত্রীর মর্যাদা। এর চেয়ে বড় আনন্দের আমার কাছে কিছুই হতে পারে না।
এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. ইমরান হোসেন বলেন, আমাদেরকে সমাজের বিভিন্ন সমস্যা নিয়ে কাজ করতে হয়। মেয়েটা তার মাকে নিয়ে আমার কাছে আসলে আমি সব কিছু শুনে তার স্বামীকে আসতে বলেছি। সে আসার পর তার সাথে আলাপ করে দেখেছি সমস্যা তেমন জটিল কিছুই না। পরে আমার উপস্থিতিতে তাদের বিয়ের রেজিষ্ট্রি করে দিয়েছি।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2024 Crimejanata24.Com
Design & Development: Hostitbd.Com