নোটিশ :
জরূরী নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি: সারাদেশ ব্যাপী সাংবাদিক নিয়োগ চলছে আগ্রহীরা যোগাযোগ করুন: 01753741909, সিভি পাঠান:  crimejanata24@gmail.com
ব্রেকিং নিউজ :
বিএনপি নেতাকর্মীর মৃত্যুর ঘটনা তদন্ত ও তাদের পরিবারকে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট করা হয়েছে। বরিশালের হিজলায় প্রবীণ আওয়ামী লীগ নেতা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব বেলায়েত হোসেন ঢালীর দাফন সম্পন্ন হয়েছে । হিজলায় অসহায় গরীব মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর অনুদান তুলে দেওয়া হয়। প্রধানমন্ত্রী পক্ষ থেকে উলানিয়া উত্তর, দক্ষিণ, গোবিন্দপুর ইউনিয়ন অসহায় শীতার্তদের মাঝে কম্বল বিতরন করেন পঙ্কজ নাথ এমপি। এ সময়ের মধ্যে হজে যেতে ইচ্ছুকদের নিবন্ধন সম্পন্ন করতে বলা হয়েছে। শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন জানিয়েছেন ফিলিপাইনের প্রেসিডেন্ট ফার্দিনান্দ আর মার্কোস আইআর। হিজলায় দৈনিক যুগান্তর পত্রিকার ২৫ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত। জাতীয় সংসদের স্পিকার নির্বাচিত হয়েছেন ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী। হিজলায় উত্তাল নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতা। বিপাকে পুলিশ প্রশাসন। সাময়িক বরখাস্ত হলেন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ।
মুলাদী বন্দরের টিনের বেড়া কেটে ৪ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে চুরি ।

মুলাদী বন্দরের টিনের বেড়া কেটে ৪ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে চুরি ।

 মুলাদী প্রতিনিধিঃ রেজা হাওলাদার: মুলাদী বন্দরের টিনের বেড়া কেটে ৪টি দোকানে চুরির ঘটনা ঘটেছে। জানাগেছে, গত ৫ অক্টোবর সোমবার দিবাগত রাতে মুলাদী বন্দরের পৌর সুপার মার্কেট সংলগ্ন বীরমুক্তিযোদ্ধা ডাঃ আব্দুর রাজ্জাক ভুলু সেতুর পশ্চিম পার্শ্বের একই সারির ৪টি মুদি দোকানে গভীর রাতে দোকানের পিছনের টিন কেটে ইউনুস হাওলাদারের নোমান স্টোর, সিরাজ হাওলাদারের মুলাদী স্টোর, বায়েজিদ স্টোর ও মোবারক হোসেনর মিলন স্টোরে চুরি করে চোর চক্র। মিলন স্টোরের পিছনের দিকের টিন কেটে দোকানে প্রবেশ করে চোর চক্র, পরে একই সাড়িতে থাকা আরও তিনটি দোকানের টিন কেটে প্রবেশ করে চুরি করে পালিয়ে যায়। নোমান স্টোরের মালিক ইউনুস হাওলাদার জানান, তার দোকানে থাকা নগদ ৯হাজার টাকা নিয়ে যায় চোর চক্র, সিরাজ হাওলাদারের মুলাদী স্টোর থেকে নগদ ১২হাজার টাকা, বায়জিদ স্টোরের নগদ ১৪হাজার টাকা ও মিলন স্টোরের প্রায় ১৫হাজার নগদ টাকা ও মালামাল নষ্ট করে পালিয়ে যায় চোর চক্র। মুলাদী থানা পুলিশ ঘটনা স্থল পরিদর্শন করেন। বিগত ২/৩ বছর যাবৎ প্রায়ই মুলাদী বন্দরে চুরি ডাকাতি ঘটতে থাকে। এব্যাপারে বন্দর ব্যবসায়ীরা জানান আমার আমাদের ব্যবসা প্রতিষ্টান নিয়ে আতংকে আছি, যে কোন সময় আমাদের ব্যবসা প্রতিষ্টানে চুরি ডাকাতির ঘটনা ঘটতে পারে, আমার ব্যবসায়ীরা অসহায় হয়ে পড়ছি। বন্দরে কি ভাবে ব্যবসা করব কিছু দিন পরপর এ ধরনের চুরি ডাকাতি হলে। মুলাদী বন্দরে ৯জন পাহাদার থাকা স্বত্বেও কিভাবে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের টিনের বেড়া কেটে চুরি হচ্ছে, তা আমরা বুঝতে পারছি না। বার বার চুরি ডাকাতির পরেও সুষ্টু তদন্তে কোন প্রতিকার পাওয়া যাচ্ছে না। এবিষয়ে মুলাদী থানার অফিসার ইনচাজ ফয়েজ আহমেদ ঘটনা স্থল পরিদর্শন কওে দ্রæত আইনী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2024 Crimejanata24.Com
Design & Development: Hostitbd.Com